Hindusthan Samachar
Banner 2 शनिवार, मार्च 23, 2019 | समय 13:46 Hrs(IST) Sonali Sonali Sonali Singh Bisht

শান্তিনিকেতনে বসন্ত উৎসবে এই প্রথম ‘সুন্দর’ নাট্যগীতি

By HindusthanSamachar | Publish Date: Mar 16 2019 10:16PM
শান্তিনিকেতনে বসন্ত উৎসবে এই প্রথম ‘সুন্দর’ নাট্যগীতি
শান্তিনিকেতন, ১৬ মার্চ (হি.স.): হাতে গোনা আর কয়েকটি দিনের পর কবিগুরুর শান্তিনিকেতনে বসন্ত উৎসব। এবার শান্তিনিকেতনে প্রথম অনুষ্ঠিত হতে চলেছে ‘সুন্দর’ নাট্যগীতি। ১৯২৫ সালে বসন্ত উৎসবের সন্ধ্যায় সুন্দর রচনা করেন। প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারনে সেটি মঞ্চস্থ হয়েছিল চৈত্র মাসের শেষ দিনে। ২০ মার্চ বুধবার সন্ধ্যা ৭টা নাগাদ শান্তিনিকেতনে আশ্রম মাঠে অনুষ্ঠিত হবে সুন্দর নাট্যগীতি। ১৯২৯ সালে ‘সুন্দর’ নাট্যগীতি প্রথম ও শেষবার জোড়াসাকোঁতে অনুষ্ঠিত হয়। তারপর এই প্রথম বসন্ত উৎসবে ‘সুন্দর’ নাট্যগীতি অনুষ্ঠিত হচ্ছে শান্তিনিকেতনে। বসন্ত উৎসব ঐতিহ্যগতভাবে ধর্মনিরপেক্ষ প্রকৃতির উৎসব। এবা উৎসবের শুভ সূচনা হবে রাত্রি ৯টায় গৌর প্রাঙ্গণে বৈতালিকের মধ্য দিয়ে। ২১ মার্চ একই জায়গায় ভোর ৫টায় হবে বৈতালিক এবং আশ্রম মাঠে সকাল ৭ টায় হবে শোভাযাত্রা ও অনুষ্ঠান। এদিন সন্ধ্যা ৭টায় আশ্রম মাঠে অনুষ্ঠিত হবে নৃত্যনাট্য শ্যামা। জানা গেছে, ফেব্রুয়ারি মাসে বসন্ত উৎসব নিয়ে রাজ্য প্রশাসনের সাথে বিশ্বভারতী কতৃপক্ষের বৈঠক হয়। সেখানে নিরাপত্তা বিষয়ক আলোচনা হয়। বসন্ত উৎসবের আগে আরও একবার নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে বৈঠক হওয়ার সম্ভাবনা আছে। প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, সি সি টি ভি, ড্রোন, নজরদারি এসব থাকবেই। বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্যাম্পাস বিল্ডিংয়ের রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্বে যাঁরা আছেন তাঁরা থাকবে। তবে জন নিয়ন্ত্রণটা পুরোপুরি রাজ্য প্রশাসনের দায়িত্বে যেমন থাকে তেমনি থাকবে। সে ব্যাপারে প্রশাসনের সাথে কর্তৃপক্ষের বিগত বৈঠকে আলোচনা হবে, বলে সূত্রের খবর। সঙ্গীত ভবনের শতাধিক ছাত্রছাত্রী অংশ গ্রহণ করবে। এই নাট্যগীতি অনুষ্ঠানের পরিচালনা ও সম্পাদনা করছেন বিশ্বভারতীর সঙ্গীত ভবনের রবীন্দ্র সঙ্গীত, নৃত্য এবং নাট্য বিভাগের অধ্যাপক অমর্ত্য মুখোপাধ্যায়। সঙ্গীত নির্দেশনায় আছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গীত ভবনের অধ্যাপিকা মাধবী রুজ। অমর্ত্য মুখোপাধ্যায় জানান, “সুন্দর নাট্যগীতি বহুকাল পরে হওয়ার কারনে আমাদের আকাঙ্ক্ষিত উৎসবের সূচনাতেই সবাইকে সেই বার্তা পৌঁছে দেবে সৌন্দর্য্যের মধ্যে দিয়ে”। তিনি বলেন, গীতি নাট্যে গানটাই মূল সুরের মত থাকে। নাটকটা সেখানে প্রধান। নাট্যগীতিতে নাটকটাই মূল সুরের মত থাকে। তারপরেও গানগুলো অত্যন্ত আকর্ষণীয় হয়ে ওঠে। ফলে একটা জায়গায় নাটকটা গুরুত্ব পায়। আরেকটা জায়গায় গান ও নাচগুলো গুরুত্ব পায়। জানা গেছে, ১৯২৯ সালে এই নাট্য গীতিতে রাণী আর বসন্তিকা চরিত্র দুটি যুক্ত করেন রবীন্দ্রনাথ। এই গোটা নাট্যগীতির মধ্যে অদ্ভূতভাবে লক্ষ্য করা গেছে মেয়েদের খুব প্রাধান্য। বসন্ত উৎসবের আগে মহড়ায় ব্যস্ততার মধ্যে দিন কাটছে সঙ্গীত ভবনের ছাত্রছাত্রীদের। সঙ্গীত ভবনের তৃতীয় বর্ষের রবীন্দ্র নৃত্যের ছাত্র বিনয় মল্লিক বলেন, ফেব্রুয়ারী মাস থেকে চলছে মহড়া। আমাদের কাছে সুন্দর নাট্যগীতিতে অংশ গ্রহণ একটি বড় পাওনা।–হিন্দুস্থান সমাচার / হেমাভ/ কাকলি
लोकप्रिय खबरें
फोटो और वीडियो गैलरी
image