Hindusthan Samachar
Banner 2 शनिवार, मार्च 23, 2019 | समय 13:51 Hrs(IST) Sonali Sonali Sonali Singh Bisht

ভাটপাড়ায় ফের বিজেপি-তৃণমূল সংঘর্ষে ব্যাপক উত্তেজনা, অর্জুন অনুগামীদের উপর আক্রমণ

By HindusthanSamachar | Publish Date: Mar 16 2019 9:42PM
ভাটপাড়ায় ফের বিজেপি-তৃণমূল সংঘর্ষে ব্যাপক উত্তেজনা, অর্জুন অনুগামীদের উপর আক্রমণ
বারাকপুর, ১৬ মার্চ (হি.স.) : আসন্ন সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনের আগে উত্তর ২৪ পরগনার বারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রের ভাটপাড়া কেন্দ্রে বিজেপি-তৃণমূল সংঘর্ষের ঘটনায় শনিবার সকাল থেকে এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা ছড়াল। এই ঘটনার জেরে আক্রান্ত কয়েক হাজার অর্জুন সিংয়ের অনুগামীরা জগদ্দল থানা ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে। এলাকায় নামানো হয় বিশাল পুলিশ বাহিনী ও কমব্যাট ফোর্স। অর্জুন সিং তৃণমূল কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিতেই অর্জুন বিরোধী বলে পরিচিত ভাটপাড়ার বেশ কয়েকজন বিজেপি, কংগ্রেস এবং বিজেপির স্থানীয় নেতারা একজোট হয়ে তৃনমূল কংগ্রেসে নাম লেখায়। এই দলে রয়েছে জিতেন্দ্র সাউ ওরফে জিতু, প্রমোদ সিং, ধরমপাল গুপ্তারা। স্থানীয় এই নেতারা বরাবরই অর্জুন বিরোধী বলে ভাটপাড়া এলাকায় পরিচিত। অভিযোগ, অর্জুন সিং দিল্লিতে থাকায় এই নেতারা তৃণমূলের পতাকা তলে এসে শনিবার সকাল থেকে বহিরাগত দুষ্কৃতী এলাকায় নিয়ে এসে সদ্য বিজেপিতে যোগ দেওয়া অর্জুন অনুগামীদের বাড়িতে ঢুকে ঢুকে হামলা চালিয়েছে ও অসংখ্য বিজেপি কর্মীদের বাড়ি, গাড়ি ভাংচুর করেছে বলে অভিযোগ। স্থানীয় বিজেপি কর্মীদের অভিযোগ, এই দুষ্কৃতী হামলায় জখম হয়েছে ৫ জন বিজেপি কর্মী সমর্থক । এদের মধ্যে ২ মহিলা সমর্থকও রয়েছে বলে জানা গিয়েছে। এমনকি অর্জুন সিংয়ের ব্যক্তিগত অফিস ভাটপাড়ার মেঘনা মোড়ের মজদুর ভবনে ঢুকেও ওই দুষ্কৃতীরা হামলা করে বলে অভিযোগ। অর্জুন অনুগামীদের অভিযোগ, হামলাকারীরা সশস্ত্র অবস্থায় এলাকায় দাপিয়ে বেরিয়েছে। এলাকাবাসীর অভিযোগ, ওই এলাকায় বহিরাগত দুষ্কৃতীরা দুই রাউন্ড গুলিও চালিয়েছে এলাকায় আতঙ্কের পরিবেশ তৈরি করছে। এই হামলার প্রতিবাদেই শনিবার দুপুরে হাজার খানেক বিজেপি কর্মী জগদ্দল থানা ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখায়। বিজেপি কর্মীদের দাবি, সদ্য তৃণমূলে যোগ দেওয়া প্রমোদ সিং, ধরমপাল গুপ্তার গুন্ডাবাহিনী হামলা চালিয়েছে। তাদের অবিলম্বে গ্রেফতার করতে হবে । এদিকে ভাটপাড়ার তৃনমূল কংগ্রেস নেতা সোমনাথ তালুকদার জানিয়েছেন, ‘তৃণমূল কর্মীরা এরকম হামলার ঘটনা ঘটায়নি। বিজেপির অন্তর্দ্বন্দ্বে কিছু হতে পারে। পুলিশ নিশ্চই বিষয়টি দেখবে।’ হিন্দুস্থান সমাচার/ সঞ্জয়
लोकप्रिय खबरें
फोटो और वीडियो गैलरी
image